ব্রেকিং নিউজ :
অবৈধ ব্যাটারি রিকশা বন্ধে সুপ্রিম কোর্টের রায় বাস্তবায়ন শিগগির : চসিক মেয়র কোভিড মৃত্যুর জন্য জর্ডান হাসপাতাল প্রধানের জেল বাজেট সাপোর্টের আওতায় বিশ্বব্যাংককে প্রকল্প ঋণ প্রদানের অনুরোধ দীর্ঘদিন ক্ষমতায় না থাকায় বিএনপি নেতারা দিশেহারা : ওবায়দুল কাদের বঙ্গবন্ধু শান্তি ও সম্প্রীতিতে বিশ্বাসী ছিলেন : সায়মা ওয়াজেদ শ্রীঘ্রই জাতীয় সেচ্ছাসেবক নীতিমালা মন্ত্রিপরিষদে উত্থাপন করা হবে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ইউজিসির প্রফেসর হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ডা. সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জী আইসিটি বিভাগের প্রকল্পসমূহের আর্থিক অগ্রগতি ১৯ দশমিক ২৭ শতাংশ কেরাণীগঞ্জস্থ দোলেশ্বর হানাফিয়া জামে মসজিদের ইউনেস্কো পুরস্কার লাভ প্লাস্টিক পণ্য রপ্তানি আয় ৩০ শতাংশ বেড়েছে
  • আপডেট টাইম : 19/11/2021 06:03 PM
  • 37 বার পঠিত

কারিনা কাপুর খান মানেই আভিজাত্য আর স্টাইলের আইকন। কারিনা অভিনীত প্রায় সব ছবিই সুপারহিট। শাহরুখ, আমির কিংবা সালমান যে খানই হোক না কেনো সকলের সঙ্গেই দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। যদিও সাইফ আলি খানকে বিয়ের পর কমে গিয়েছে তার কাজ। ইতিমধ্যে দুই সন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। তৈমুর আলি খান ও জেহ। তৈমুর এখন বেশ কিছুটা বড়। সবে আট মাসে পা দিয়েছে জেহ। যদিও জেহর মুখের ছবি এখনও তিনি সামনে আনেননি কারিনা। তার কারণ মিডিয়া ও জনপ্রিয়তার আলো থেকে ছোট ছেলেকে দূরে রাখতে চান তিনি।
তবে মজার ব্যাপার হল বাবা রণধীর কাপুরকে মার খাওয়া থেকে বাঁচাতে অমিতাভ বচ্চনের পা ধরে কেঁদেছেন জনপ্রিয় এই নায়িকা। অবাক লাগলেও সম্প্রতি একটি শোতে এসে একথা জানিয়েছেন তিনি নিজেই। অমিতাভের হাতে মার খাওয়া থেকে বাঁচাতেই তার পা ধরে কেঁদেছিলেন কারিনা।
ওই শোতে কারিনা কাপুর জানান, ১৯৮৩ সাল। তার বয়স তখন বছর তিন। সে সময় রণধীর কাপুর, অমিতাভ বচ্চন ও জিনাত আমান অভিনীত ছবি 'পুকার'-এর শুটিং চলছে বলিউডে। বাবার সঙ্গে সে দিন শুটিং দেখতে গিয়েছিলেন ছোট্ট কারিনা। সেদিন একটি দৃশ্যের শ্যুটিং ছিল যেখানে রণধীর কাপুরকে মারবেন অমিতাভ। কারিনা বসে শ্যুটিং দেখছেন। হঠাৎ বাবাকে মারতে দেখে, ছুটে চলে যান ছোট্ট কারিনা। গিয়ে সোজা অমিতাভের পা জড়িয়ে ধরে কাঁদতে কাঁদতে বলেন, " আমার বাবাকে মেরো না প্লিজ।" এই কাণ্ডে শুটিং তো বন্ধ হয়ে যায়। কারণ ছোট্ট কারিনাকে কোলে নিয়ে সামলাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন বিগ-বি। তাকে বোঝাবার চেষ্টা করেন এটা শুটিং হচ্ছে। কে কার কথা শোনে মেয়ে তো কেঁদেই চলেছে। বাবাকে বাঁচানোর জন্য ছুটতে গিয়ে ব্যাথাও লাগে করিনার পায়ে। পড়ে অমিতাভ নিজে হাতে মলম লাগিয়ে দেন কারিনাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...