ব্রেকিং নিউজ :
চুয়েট ইনকিউবেটরে ‘স্মার্ট ইলেকট্রিক্যাল পাওয়ার সিস্টেম’ বিষয়ক সেমিনার স্বপ্নের পদ্মা সেতু দিয়ে বেনাপোল থেকে রাজধানী যাচ্ছেন ভারত ফেরত যাত্রীরা বন্যাকবলিত এলাকায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ত্রাণ বিতরণ প্রধানমন্ত্রী পদ্মাসেতু করতে হার্ডিঞ্জ ব্রিজের তুলনায় প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় করেছেন : তথ্যমন্ত্রী উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা শিল্পায়নকে ত্বরান্বিত করে : প্রধানমন্ত্রী ১৯৭০ সালে পাকিস্তানের পক্ষ নেয়া এমএনএ-এমপিএদের তালিকা করার বিধানের সুপারিশ মেধা ও উদ্ভাবনী শক্তি কাজে লাগিয়ে বিনিয়োগের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে যুবসমাজের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির দক্ষতা নির্ভর শিক্ষা এগিয়ে নিতে অত্যাধুনিক মোশন গ্রাফিক্স ল্যাব স্থাপন করা হবে : পলক বিএনপি’র নেতিবাচক রাজনীতি এখন পদ্মার অতল গর্ভে তলিয়ে গেছে : ওবায়দুল কাদের দেশের সকল দুর্যোগে সবার আগে আওয়ামী লীগকেই জনগণ কাছে পেয়েছে : হানিফ
  • আপডেট টাইম : 16/06/2022 11:37 PM
  • 8 বার পঠিত

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সাবেক প্রধান বিচারপতি (সিজে) সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত একটি দুর্নীতি মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আদালত ৩০ আগস্ট ধার্য করেছেন।
সিনহার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আজ দিন ধার্য ছিল।
দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) প্রতিবেদন দাখিল করতে ব্যর্থ হওয়ায় ঢাকা মহানগর দায়েরা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আজ নতুন করে এ তারিখ ধার্য করেন।
২০২১ সালের ১০ অক্টোবর, দুদকের উপ-পরিচালক মো. গুলশান আনোয়ার এস কে সিনহার বিরুদ্ধে দুদকের সমন্বিত ঢাকা জেলা কার্যালয়-১-এ তার ভাই ও আত্মীয়ের নামে ক্ষমতার অপব্যবহার এবং অর্থ পাচারের মাধ্যমে ৭ কোটি ১৪ লাখ টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন।
মামলার এজাহারে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি থাকাকালে এস কে সিনহা উত্তরা আবাসিক এলাকায় রাজউকের কাছ থেকে একটি প্লট নেন এবং ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার ভাইয়ের নামে রাজউক পূর্বাচল প্রকল্পে আরও তিন কাঠার প্লট নেন।
পরে তিনি তিন কাঠার প্লটটি পাঁচ কাঠায় উন্নীত করেন, প্লটটি পূর্বাচল থেকে উত্তরা সেক্টর-৪-এ স্থানান্তর করেন এবং তার এক আত্মীয়কে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি দেন।
দুদক তার অনুসন্ধানে দেখতে পায়, সাবেক প্রধান বিচারপতি এই প্লটের বিপরীতে রাজউককে ৭৫ লাখ টাকা দেন এবং এর ওপর ৬ কোটি ৩১ লাখ টাকা ব্যয়ে নয় তলার অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্স নির্মাণ করেন।
দুর্নীতি দমন সংস্থা আরও বলেছে প্লট ক্রয় এবং অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের উন্নয়নে ব্যবহৃত অর্থের কোনও বৈধ উৎস পাওয়া যায়নি।
গত বছরের নভেম্বরে চার কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে পৃথক দুটি মামলায় সিনহাকে ১১ বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...