ব্রেকিং নিউজ :
রংপুরের পীরগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রণোদনার চেক বিতরণ বন্যায় সুনামগঞ্জে ২ হাজার ২শ’ কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন ভিয়েতনামে বাংলাদেশ দূতাবাসে পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন উদযাপন পদ্মা সেতু কাল সকাল ৬টা থেকে যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হবে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে বায়তুল মুকাররমে দোয়া অনুষ্ঠিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু দেশের ক্রীড়াঙ্গনে নতুন দ্বার উন্মোচন করবে : সৈয়দ শাহেদ রেজা কলেরা টিকা কর্মসূচি শুরু হচ্ছে আগামীকাল জনগণের শক্তিতে বিশ্বাস করেছি বলেই পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী
  • আপডেট টাইম : 18/06/2022 11:50 PM
  • 21 বার পঠিত

উজ্জ্বল রায় : নড়াইলে ফেসবুকে স্টাটাস অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাস ও শিক্ষার্থী রাহুলকে আটক করেছে পুলিশ। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে কটুক্তিকারী নুপুর শর্মার পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেওয়ায় নড়াইলে মীর্জাপুর ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাস ও শিক্ষার্থী রাহুলকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানায়, নড়াইলে মীর্জাপুর ডিগ্রী কলেজের কলেজের শিক্ষার্থী রাহুল মাহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) সম্পর্কে কটুক্তিকারী নুপুর শর্মার পক্ষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেন। কলেজের অন্য শিক্ষার্থীরা বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাকে মুছে ফেলার জন্য অনুরোধ করেন। কথা না শোনায় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসের কাছে জানালে তিনিও রাহুলের পক্ষ নিয়ে কথা বলে কলেজের অন্য শিক্ষার্থীদের বের করে দেন। এ ঘটনা এলাকায় জানাজানি হলে কলেজ ক্যাাম্পাসে আসে পাশের লোকজন এসে কলেজ ঘিরে রাখে। উত্তেজিত জনতা এসময় ৩টি মোটরসাইকেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষন করে।
সংবাদ পেয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাস ও অভিযুক্ত রাহুলকে উদ্ধার থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।
অভিযুক্ত রাহুলকে উদ্ধার করে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)শওকত কবিরের সাথে শনিবার বিকাল ৫ টা ৪৭ মিনিটে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।
পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায়ের সাথে শনিবার বিকাল ৫ টা ৫০ মিনিটে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন কেটে দেন।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমরা অধ্যক্ষসহ অভিযুক্তকে নিয়ে এসেছি। এ ঘটনায় উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে কয়েক রাউন্ড গ্যাস ছোড়া হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান জেলা প্রশাসক।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...